Connect with us
ক্রিকেট

বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্বে বাংলাদেশসহ কোন দলের কত আয়?

Bangladesh cricket team in T20 world cup
টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। ছবি - সংগৃহীত

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ২০ দল নিয়ে শুরু হয়েছিল বিশ্বকাপের চলতি আসর। যেখানে গ্রুপপর্ব থেকে বিদায় নিয়েছে ১২ টি দল। বাকি ৮ দল নিয়ে আজ থেকে মাঠে গড়াতে যাচ্ছে সুপার এইট রাউন্ডের খেলা। এবার দেখে নেওয়া যাক, গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেওয়া ও সুপার এইটে ওঠা কোন দল পুরস্কার মূল্য হিসেবে কত টাকা আয় করবে।

সুপার এইটের বাইরে ৯ থেকে ১২ নম্বরে থেকে টুর্নামেন্ট থেকে বাদ পড়া দলগুলো পাবে ২৪৭,৫০০ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ দাঁড়ায় ২ কোটি ৯০ লাখ টাকা। এই পরিমাণ অর্থ পাবে পাকিস্তান, স্কটল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও শ্রীলঙ্কা।

এছাড়া ১৩ থেকে ২০ নম্বরে থাকা বাকি দলগুলো পাবে ২২৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বা ২ কোটি ৬৪ লাখ টাকা। এই দলগুলো হলো কানাডা, আয়ারল্যান্ড, নামিবিয়া, ওমান, উগান্ডা, পাপুয়া নিউগিনি, নেদারল্যান্ডস ও নেপাল। আর গ্রুপ পর্বে প্রতিটি ম্যাচ জয়ী দল ৩৬ লাখের বেশি করে টাকা পাবে। এছাড়া সুপার এইটে ওঠা প্রতিটি দল ইতোমধ্যেই পুরস্কার হিসেবে ৩ কোটির বেশি টাকা নিশ্চিত করে ফেলেছে। দ্বিতীয় রাউন্ডে কোন দল যদি জয়হীন থাকে এরপরও তারা এই অর্থ পাবে। সেমিফাইনাল ও ফাইনালে ওঠা দলগুলোর জন্য আর্থিক বরাদ্দের পরিমাণ আরও বেশি।

ইতোমধ্যে তিন কোটির বেশি আর্থিক পুরস্কার নিশ্চিত করেছে অস্ট্রেলিয়া, ভারত, যুক্তরাষ্ট্র, ইংল্যান্ড, ওয়েস্ট ইন্ডিজ, দক্ষিণ আফ্রিকা, আফগানিস্তান ও বাংলাদেশ। সাথে প্রতিটি ম্যাচ জয়ের পুরস্কার হিসবে ৩৬ লাখ টাকা তো আছেই। ওয়েস্ট ইন্ডিজ, অস্ট্রেলিয়া ও দক্ষিণ আফ্রিকা – এই তিন দল গ্রুপ পর্বের সবগুলো ম্যাচ জিতে আয় করেছে ১ কোটি ৪৪ লাখ টাকারও বেশি। আর সুপার এইটে ওঠার পুরস্কার স্বরূপ তিন কোটি টাকা তো আছেই। অর্থাৎ প্রথম রাউন্ড শেষে এই তিন দলের আয় সর্বোচ্চ সাড়ে চার কোটির মত।

আরও পড়ুন : বিশ্বকাপে বাংলাদেশ-ভারত ম্যাচসহ আজকের খেলা (২২ জুন ২৪)

আয়ের দিক থেকে এরপরেই আছে ভারত। গ্রুপ পর্বে তিন জয় ও বৃষ্টিতে এক ম্যাচ পরিত্যাক্ত হওয়ায় ম্যাচ জয়ের বোনাস হিসেবে টিম ইন্ডিয়ার আয় কোটি টাকার মত। এখন পর্যন্ত তাদের সব মিলিয়ে অর্জন চার কোটির উপরে। বাংলাদেশ ও আফগানিস্তানেরও তিন জয়ের সুবাদে মোট আর্থিক পুরস্কার চার কোটি টাকার বেশি। এরপরেই আছে স্বাগতিক যুক্তরাষ্ট্র ও ইংল্যান্ড। দুই জয় ও একটি ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেসে যাওয়ায় তাদের আয় প্রায় ৩ কোটি ৭৫ লাখ টাকার কাছাকাছি।

উল্লেখ্য, বিশ্বকাপের জন্য রেকর্ড ১১.২৫ মিলিয়ন বা ১৩২ কোটি টাকা প্রাইজমানি হিসেবে ঘোষণা করেছে আইসিসি। আগের আসরের চেয়ে যা এবার প্রায় দ্বিগুণ (৫.৬ মিলিয়ন ডলার)। এবারের শিরোপা জয়ীরা পাবে ২.৪৫ মিলিয়ন মার্কিন ডলার বা ২৯ কোটি টাকা। রানার্সআপ দল পাবে ১.২৮ মিলিয়ন বা সাড়ে ১৫ কোটি টাকা। সেমি থেকে বাদ পড়া দুই দল পাবে প্রায় ৯ কোটি ২৪ লাখ টাকা। সুপার এইট থেকে বাদ পড়া চার দল বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৪ কোটি ৫০ লাখ করে টাকা পাবে।

ক্রিফোস্পোর্টস/১৯জুন২৪/এমএস

Click to comment

Leave a Reply

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

Focus

More in ক্রিকেট